প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান হলেও ম্যাচটি পাকিস্তানের জন্য অনেকটা বাঁচা-মরার। পা ফসকে গেলেই গেল! লিডসের হেডিংলিতে গুরুত্বপূর্ণ এই লড়াইয়ে টস হেরে প্রতিবেশী দেশটির বিপক্ষে প্রথমে বোলিংয়ে নামতে যাচ্ছে সরফরাজ আহমেদের দল।

বিশ্বকাপ মঞ্চে এর আগে কখনও দেখা হয়নি পাকিস্তান-আফগানিস্তানের। তবে দুই দলের ওয়ানডেতে এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে তিনবার। অবশ্য সববারই জয়ের হাসি নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পাকিস্তান। তবে আজ আর তেমনটি হতে দিতে চাই না আফগানরা। এদিকে পাকিস্তান চাই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে আগের মতই জয়। একই সঙ্গে চলতি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে।

এবারের ‘ডার্ক হর্স’ তকমা নিয়ে এসেছে আফগানিস্তান। কিন্তু এখনো কোন ম্যাচ জিততে পারেনি তারা। যে কারণে সবার আগে এ টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটি। তবে গুলবাদিন নাইবের দল আজ মাঠে নেমেছে সুখস্মৃতি নিয়ে। বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়েছিলেন তারা।

বিশ্বকাপের পয়েন্ট তালিকায় ছয় নম্বরে রয়েছে পাকিস্তান। ৭ ম্যাচে তাদের অর্জন ৭ পয়েন্ট। আফগানিস্তান রয়েছে দশ দলের পয়েন্ট তালিকার তলানিতে। ৭ ম্যাচ খেলে সবকটিতে হেরেছে তারা। কোনো পয়েন্ট নেই তাদের নামের পাশে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পাওয়া একাদশে কোনো পরিবর্তন আনেনি পাকিস্তান। একই একাদশ নিয়ে আফগানিস্তানের সঙ্গে লড়বে তারা।

একটি পরিবর্তন আফগানিস্তান একাদশে। পেসার হামিদ হাসানের পরিবর্তে একাদশে ডাক পেয়েছেন আরেক পেসার দওলত জাদরান।

পাকিস্তান একাদশ: ইমাম-উল-হক, ফখর জামান, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, হারিস সোহেল, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক-উইকেটকিপার), ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ আমির, শাহিন আফ্রিদি

আফগানিস্তান একাদশ: গুলবাদিন নায়েব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাসমতউল্লাহ শহিদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, নাজিবুল্লাহ জাদরান, ইকরাম আলি খিল (উইকেটকিপার), রশিদ খান, হামিদ হাসান ও মুজিব উর রহমান

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here