এখন যে যুগে বাস করা হচ্ছে তাতে ইন্টারনেট ছাড়া বাঁচার কথা ভাবা ক্রমশ কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছে কারণ মানব জীবনের সঙ্গে তা একেবারে জড়িয়ে গিয়েছে। তাই শুধু বড় বড় সংস্থা কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অনেক বাডি়তেও ইন্টারনেটের জন্য ইদানিং ওয়াই-ফাই কানেকশন নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেটা ঠিক মতো ব্যবহার না করলে, অন্য কোনও ডিভাইস থেকে বাইরের কেউ আপনার কানেকশন ব্যবহার করতে পারে। ওয়াই-ফাই কানেকশন সুরক্ষিত রাখতে কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার৷

এজন্য কয়েকটি বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে-
১. দেখতে হবে ইন্টারনেটের স্পিড কমে যাচ্ছে কি না ? সেক্ষেত্রে দেখতে হবে এর কারণ সার্ভারের সমস্যা নাকি ইন্টারনেট প্রদানকারি সংস্থা দায়ী ৷ কিন্তু তা না হলে কেউ আপনার অজান্তে ওই ইন্টারনেট ব্যবহার করছে এবং তারই জেরে কমে যাচ্ছে ওয়াই-ফাই স্পিড ।

২. প্রত্যেক ইউজারের কাছে যেন একটি অনন্য আইপি(IP) এবং ম্যাক(MAC) অ্যাড্রেস অবশ্যই থাকতে হবে। সঠিক ইউজার আইডির সঙ্গে রাউটার সংযুক্ত রয়েছে কিনা সেটা বোঝা যাবে মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটারে ওয়াই-ফাই সেটিংস-এ গিয়ে। কারণ এই রকম ডিভাইসে অনেক সময় অন্যান্য ইউজারের নামও ফুটে ওঠে। তাছাড়া অন্য কোনও ডিভাইস আপনার রাউটারের সঙ্গে যুক্ত কিনা এবং ওয়াই-ফাই-এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করছে কিনা তা তখন জানা যাবে।

৩. এক্ষেত্রে জটিল পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা উচিত যাতে সহজে তা লোক পেয়ে না যায়।

৪. বাজারে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার রয়েছে – যেগুলি ব্যবহার করলে জানা যায় অন্য কেউ ওই ডিভাইস রাউটারের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে কিনা।

৫. রাউটারের উপর একটা কোড থাকে, যেটাকে বলে এসএসআইডি(সার্ভিস সেট আইডেন্টিফায়ার)। এখন এই কোডটিকে হাইড করে দিলে বলতে গেসে সুরক্ষিত থাকে নেটওয়ার্ক।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here