ত্বকের যত্নে আমাদের চিন্তার শেষ থাকে না। একটু উজ্জ্বলতার জন্য কখনও এটা কখনও ওটা মাখিয়ে থাকি। প্রকৃতপক্ষে কোনটা ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া সম্ভব হবে তা না জানার কারণে সঠিক জিনিসটার উপকার পাওয়া থেকে আমরা বঞ্চিত হই। কিন্তু ঘরের কিছু উপাদান থাকে যা ব্যবহারের ফলে ত্বকে উজ্জ্বলভাব আনার পাশাপাশি বয়সের ছাপ দূর করতে সাহায্য করে।

সবচেয়ে ভালো ময়েশ্চারাইজার:

দুধের সর উন্নত চর্বিতে ভরপুর যা ত্বকের প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। ত্বকে কয়েক মিনিট দুধের সর মালিশ করলে তা ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে ক্ষতিগ্রস্ত কোষের ক্ষয় পূরণ করে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়:

দুধের সর কেবল ভালো ময়েশ্চারাইজার-ই না বরং এটা ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতেও সাহায্য করে। সরের সঙ্গে মধু মিশিয়ে তা মুখে লাগান। মধু উচ্চ খনিজ সম্পন্ন যা ত্বক সুস্থ রাখে এবং আগের চেয়ে অনেক বেশি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।

ত্বকের রং হালকা করে:

দুধের সরে থাকে ল্যাক্টিক অ্যাসিড। যা ত্বকের পোড়াভাব দূর করে এবং প্রাকৃতিকভাবেই রং হালকা করে সার্বিকভাবেই ত্বক উন্নত করে।

কালো দাগ দূর করে:

ত্বকের কালো দাগ দূর করতে আক্রান্ত স্থানে কয়েক মিনিট দুধের সর মালিশ করুন। ভালো ফলাফলের জন্য সরের সঙ্গে এক টেবিল-চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। শুকিয়ে আসলে সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। সর মৃত-কোষ দূর করে এবং নতুন কোষ গঠনে সহায়তা করে।

বয়সের ছাপ দূর করে:

প্রাচীনকালে নারীরা ফেইস প্যাক বা স্ক্রাবার হিসেবে নিয়মিত দুধের সর ব্যবহার করতেন। এর প্রোটিন ও ভিটামিন কোষকলার উৎপাদন বাড়ায় এবং বয়সের ছাপ পড়া দূর করে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here